কচুয়া প্রতিনিধি ।। চাঁদপুরের কচুয়ায় শ্বশুরবাড়িতে যুবকের রহস্যজনক মৃত্যু। মৃত যুবকের নাম সোহেল হোসেন (২০)।বৃহস্পতিবার (২২ এপ্রিল’২১ খ্রিঃ) সকালে কচুয়া উপজেলার ভূঁইয়ারা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

 

মৃত সোহেল হোসেন একই উপজেলার উত্তর পালাখাল গ্রামের আব্দুর রশিদের ছেলে। এ ঘটনায় সোহেলের স্ত্রী মুন্নী বেগমকে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করছে কচুয়া থানায় পুলিশ।

 

মৃতের পরিবারের সদস্যরা জানান, এক বছর পূর্বে ভূঁইয়ারা গ্রামের মুন্সীবাড়ির আবুল বাসার মাস্টারের মেয়ে মুন্নীর সঙ্গে সোহেল হোসেন পারিবারিকভাবে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়। বিয়ের পর থেকে তাদের মধ্যে বনিবনা না হওয়ায় প্রায়ই ঝগড়া লেগে থাকত। সোহেল হোসেন কুমিল্লায় তার কর্মস্থল থেকে কাজ শেষে বুধবার (২১ এপ্রিল’২১ খ্রিঃ) বিকালে শ্বশুরবাড়িতে আসেন।

 

বৃহস্পতিবার (২২ এপ্রিল’২১ খ্রিঃ) শ্বশুরবাড়ির লোকজন তাকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করেছে বলে সোহেলের পরিবার দাবি করে। তারা সোহেল হোসেনের মৃত্যুর রহস্য উদঘাটনসহ প্রকৃত দোষীদের চিহ্নিত করে শাস্তির দাবি জানান।

 

এব্যাপারে সোহেল হোসেনের শ্বশুর আবুল বাসার মাস্টার সাংবাদিকদের বলেন, বুধবার (২১ এপ্রিল’২১ খ্রিঃ) বিকেলে সোহেল হোসেন আমাদের বাড়ি বেড়াতে আসে। তার অসুস্থতা দেখে আমরা তাকে ডাক্তার দেখাতে বললে সোহেল হোসেন বলে- ডাক্তার দেখানো লাগবে না, আমি ওষুধ খেয়েছি। হঠাৎ তার নাক-মুখ দিয়ে রক্ত বের হলে দ্রুত তাকে কচুয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক সোহেল হোসেনকে মৃত ঘোষণা করেন।

 

এ ব্যাপারে কচুয়া থানার অফিসার ইনচার্জ মো. মহিউদ্দিন বলেন, শ্বশুর বাড়িতে যুবকের রহস্যজনক মৃত্যুর খবর পেয়ে কচুয়া থানা পুলিশ ঘটনাস্থল হতে সোহেলের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করা হয়। ওই যুবকের পরিবারের পক্ষ থেকে অভিযোগ করলে তদন্তপূর্বক পরবর্তীতে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।