স্টাফ রিপোর্টার ॥ প্রতিপক্ষের দেওয়া আগুনে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ৯ দিন পর মৃত্যু বরণ করেছেন ব্যবসায়ী ইকবাল হোসেন খোকা (৫৬)। ৭ জুন সোমবার সকালে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে তিনি মারা যান।

 

জানা যায়, গত ২৯ মে চাঁদপুর সদর উপজেলার বাগাদী ইউনিয়নের ৩ নং ওয়ার্ডের পশ্চিম সকদী গ্রামে মুদি দোকানদার ইকবাল হোসেন খোকা (৫৬) কে দোকানের ভেতরে রেখে পেট্রোল দিয়ে আগুন লাগিয়ে দেওয়া হয়। ব্যবসায়ী ইকবাল হোসেন খোকার পরিবারবর্গ জানান, খোকার চাচাতো বোন রোকেয়া বেগমের জায়গা রশিদ গং জোরপূর্বক দখল করে ঘর নির্মাণ করে। ঘরটি তারা ভেঙে ফেলে। এ ঘর ইকবাল হোসেন খোকার নেতৃত্বে ভাঙা হয়েছে বলে রশিদ খান, শহীদুল্লা খান, দেলু খান ও মোরশালিন ক্ষিপ্ত হয়ে খোকাকে মেরে ফেলার জন্য দা, ছেনী নিয়ে তার ওপর হামলা করতে যায়। পরে তারা দোকানের ভেতরে খোকাকে রেখে পেট্রোল দিয়ে আগুন লাগিয়ে দেয়। এতে ইকবাল হোসেন খোকার শরীর ঝলসে যায়। স্থানীয় লোকজন ও তার আত্মীয় স্বজনরা তার ডাক চিৎকার শুনে তাকে উদ্ধার করে চাঁদপুর সরকারি জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে আসলে চিকিৎসক উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করে। আহত ইকবাল হোসেন খোকা ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ণ ইউনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু বরণ করেন।

 

উল্লেখ্য, দেলু খান একজন চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী। তার বিরুদ্ধে মাদক মামলা রয়েছে। সে মাদক মামলায় জেল হাজত খাটে। কিছু দিন সে গা ঢাকা দিয়ে থাকার পর পুনরায় এলাকায় চলে আসে এবং জমি দখল করে। এমনকি জমি দখলকে কেন্দ্র করে ইকবাল হোসেন খোকা জড়িত সন্দেহে দোকানের ভেতরে রেখে পেট্রোল দিয়ে আগুন লাগিয়ে দেয়।অবশেষে দীর্ঘ ৯ দিন মৃত্যুর প্রহরগুনে চিকিৎসাধীন অবস্থায় পৃথিবীর মায়া ত্যাগ করে চলে যায় না ফেরার দেশে।